মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

নির্বাচনে একটি প্যানেলই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিল। আলী আব্বাস ও সিরাজউদ্দিন মো. আলমগীরের নেতৃত্বাধীন সেই প্যানেলই তাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। চার বছর মেয়াদে নির্বাচিত কমিটির কর্মকর্তারা হলেন—সহসভাপতি: আলী আব্বাস (চট্টগ্রাম), তরুণকান্তি ভট্টাচার্য (খাগড়াছড়ি) ও আমির হোসেন বাহার (ফেনী), সাধারণ সম্পাদক: সিরাজউদ্দিন মো. আলমগীর, সহসাধারণ সম্পাদক: নাজমুল আহসান (কুমিল্লা), যুগ্ম সম্পাদক: নজরুল ইসলাম (চট্টগ্রাম) ও নূরউদ্দিন চৌধুরী (লক্ষ্মীপুর), কোষাধ্যক্ষ: তাহের-উল-আলম চৌধুরী (চট্টগ্রাম) সদস্য: শামসুল হাসান (নোয়াখালী), খোরশেদ আলম (কক্সবাজার), আসলাম মোর্শেদ (চট্টগ্রাম), শর্মিষ্ঠা রায় (চট্ট. বিভাগীয় মহিলা ক্রীড়া সংস্থা), নোমান আল মাহমুদ (এনএসসি), আবদুর রব (লক্ষ্মীপুর), পারভীন জালাল (চট্ট. বিভাগীয় মহিলা ক্রীড়া সংস্থা)।

উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য:

ক)  ক্রীড়াক্ষেত্রে মহিলাদের অংশগ্রহণ করা সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করা, অধিক সংখ্যক মহিলাদের ক্রীড়াক্ষেত্রে অংশগ্রহণের জন্য অনুকুল পরিবেশ গড়ে তুলে সাহায্য সহযোগিতা প্রদান করা এবং উপযুক্ত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মহিলা ক্রীড়াবিদদের মান উন্নয়ন করা।

খ)  অধিক সংখ্যক মহিলা ক্রীড়াবিদ, রেফারী, আম্পায়ার, কোচ ও ক্রীড়া সংগঠক তৈরির লক্ষ্যে কর্মকান্ড পরিচালনা করা ।

গ) দেশী, বিদেশী, আন্তর্জাতিক মানের ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য উপযুক্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা।

ঘ)  মহিলা ক্রীড়াক্ষেত্রের উন্নতির জন্য সরকারি ও বেসরকারি সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির চেষ্টা করা ।

ঙ) দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাথে যোগাযোগ করা, সমন্বয় সাধন করা ও নিজস্ব কর্মসূচীর মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায় থেকে প্রতিভা

     অন্বেষণ করে প্রশিক্ষণ দ্বারা তাদেরকে যোগোপযোগী ক্রীড়াবিদ হিসাবে গড়ে তোলা।

চ)  মহিলা ক্রীড়া সংস্থার বিভাগ, জেলা, উপজেলা পর্যায়ের সংস্থার সাথে নিয়মিত যোগাযোগ স্থাপন করা এবং প্রতিটি ক্ষেত্রে

     নিয়মিত মহিলা/প্রতিযোগিতা আয়োজন করা ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা :

ছ) দরিদ্র, খ্যাতনামা, প্রতভাবান খেলোয়াড় ও সংগঠকদের সাহায্য সহযোগিতা করা।

জ)  মিহলা ক্রীড়াক্ষেত্রে উন্নয়নের সহায়ক হইবে এমন অন্যান্য কার্যাদি সম্পাদন করা ।

ঝ)  জাতীয় দিবস সমূহে দেশব্যাপী প্রতিটি সংস্থা পর্যায়ে মহিলা ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা।

ঞ)  মহিলা ক্রীড়া উন্নয়নের জন্য মহিলাদের ক্যাম্পে রেখে প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা ।

ট)  সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, কর্মশালা ও বিভিন্ন  আলোচনা সভার ব্যবস্থা করা , এ উদ্দেশ্যে ক্রীড়া বিষয়ক বিভিন্ন গ্রন্থ ও

      বুলেটিন সংগ্রহ করা ।

ঠ)  মহিলা ক্রীড়াবিদদের মধ্যে সুশৃংখল আচরণ গড়ে তুলতে সাহায্য করা ।

ড)  জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ কর্তৃক জারীকৃত নীতিমালা বাস্তবায়ন করা।